চলে গেলেন বিশিষ্ট সাহিত্যিক ও অনুবাদক শেখ আবদুল হাকিম

সাহিত্য

নিউজ ডেস্কঃ
দেশে বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক ও অনুবাদক শেখ আবদুল হাকিম মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।আজ শনিবার বেলা একটার দিকে রাজধানীর মাদারটেকের বাসায় তিনি মারা যান । অনলাইন।
প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেছে, বেশ কিছুদিন ধরেই তিনি শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন।

সেবা প্রকাশনীর একজন নিয়মিত লেখক ছিলেন তিনি। তার অনুবাদ করা বিদেশি গল্প ও উপন্যাস ব্যাপক জনপ্রিয়। ‘মাসুদ রানার’ জনক কাজী আনোয়ার হোসেন হলেও পরবর্তী সময়ে এই সিরিজে বেশ কিছু পর্ব লিখেছেন ​শেখ আবদুল হাকিম। এছাড়াও সেবা প্রকাশনী আরেকটি জনপ্রিয় সিরিজ ‘কুয়াশা’। পাশাপাশি অ্যাডভেঞ্চার, হরর ও রোমান্টিকসহ নানা স্বাদের বই তিনি উপহার দিয়েছেন।

শেখ আবদুল হাকিমের লেখা বহুল পঠিত বইয়ের মধ্যে রয়েছে আতংক,কামিনী, টেকনাফ ফর্মুলা, জুতোর ভেতর কার পা, জল দাও জল, মুঠোর ভেতর তেলেসমাতি, ঋজু সিলেটীর প্রণয়, সোমালি জলদস্যু, আইডিয়া, তিতলির অজানা, লব্ধ সৈকত, জ্যান্ত অতীত, তাহলে কে?, চন্দ্রাহত, সোনালি বুলেট প্রভৃতি। এ ছাড়া কয়েক খণ্ডে প্রকাশ হয়েছে ‍উপন্যাস সমগ্র।
যাটেরদশকের মাঝামাঝিতে সেবার আরেক সিরিজ ‘কুয়াশা’র দশম কিস্তি দিয়ে প্রকাশনীটির সঙ্গে যুক্ত হন শেখ আবদুল হাকিম। অবশ্য এর আগেই লিখে ফেলেন নিজের প্রথম উপন্যাস ‘অপরিণত প্রেম’। সেবার সঙ্গে প্রায় চার দশক যুক্ত ছিলেন শেখ আবদুল হাকিম। সেবা প্রকাশনীর মাসিক ‘রহস্য পত্রিকা’র সহকারী সম্পাদক হিসেবে তিনি যুক্ত ছিলেন অনেক বছর।

0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published.