সাংবাদিক মামুনের স্ত্রীর চিকিৎসায় অবহেলায় মৃত্যুতে বিএমএ এর নিকট অভিযোগ দাখিল

পেশাগত অসাদাচারণে জড়িত চিকিৎসকসহ গরীব নেওয়াজ ক্লিনিক
কর্তৃপক্ষের শাস্তি দাবি করলেন নাগরিক নেতৃবৃন্দ। তারা বলেন , রোগীকে হাত
বেধে এ্যানেসথেসিয়া দেওয়া কোন মতে স্বজনদের কাম্য নয়। অপারেশন থিয়েটারে
ডাক্তার আসার আগে এ্যানেসথেসিয়া দেওয়া কতটুকু সমচীন বা চিকিৎসা
শাস্ত্রে রয়েছে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। গরীব নেওয়াজ ক্লিনিকে রোগী
সংকটাপন্ন থাকা অবস্থায় অপরেশন থিয়েটারে হাসি তামাশা প্রমাণ করে
ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের যথেষ্ট অবহেলা রয়েছে। এককথায় বলতে গেলে ভুল চিকিৎসায়
সাংবাদিক মামুন খানের স্ত্রী শায়লা শারমিন মৃত্যুবরণ করেছে। প্রতিউত্তরে
বিএমএ এর সভাপতি ডাঃ শেখ বাহারুল আলম বলেন, চিকিৎসকের অবহেলাই
মারাত্মক পেশাগত অসদাচারণ। তিনি আশ^^াস দেন এই অভিযোগের ভিত্তিতে
বিএমএ ও নাগরিক নেতাবৃন্দকে নিয়ে যৌথ তদন্ত কমিটি গঠণ করা হবে।
আজ বুধবার দুপুর ২টায় বিএমএ কার্যালয়ে নাগরিকদের উদ্যোগে পেশাগত
অসদাচরণে জড়িত চিকিৎসকসহ সংশ্লিষ্টদের শাস্তির দাবিতে অভিযোগপত্র
বিএমএ এর নেতৃবৃন্দের কাছে অভিযোগ দাখিল করেন সাংবাদিক মামুন খান ও
নাগরিক নেতৃবৃন্দ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির
জেলা সম্পাদকমন্ডলী সদস্য এইচ এম শাহাদৎ, মহানগর কমিটির সভাপতি মিজানুর
রহমান বাবু, বাসদের জেলা সমন্বয়ক জনার্দন দত্ত নান্টু, গণসংহতি আন্দোলনের
জেরা সমন্বয়ক মুনির চৌধুরী সোহেল, ওয়ার্কার্স পার্টির মহানগর কমিটির
সাধারণ সম্পাদক এস এম ফারুক- উল –ইসলাম, পোল্ট্রি ফিস ফিড শিল্প মালিক
সমিতির মহাসচিব এস এম সোহরাব হোসেন, অধ্যাপক সঞ্জয় সরকার, সাইদুর
রহমান বাবু, ডিবিসির ব্যুরো প্রধান আমিরুল ইসলাম, জিটিভির ব্যুরো
প্রধান শেখ লিয়াকত হোসেন, দীপ্ত টেলিভিশনের ব্যুরো প্রধান ইয়াসিন
আরাফাত রুমি, আনন্দ টেলিভিশনের ব্যুরো প্রধান আমজাদ আলী লিটন, গ্লোবাল
টেলিভিশনের ব্যুরো প্রধান আনিছুর রহমান কবির, দৈনিক খবরের ব্যুরো প্রধান
তিতাস চক্রবর্ত্তী, সিনিয়র সাংবাদিক রণজিত দেবনাথ, খুলনা টাইমস এর
সম্পাদক সুমন আহমেদ, দৈনিক সময়ের খবরের সাংবাদিক সোহাগ দেওয়ান,
দৈনিক জন্মভূমির সিনিয়র ফটো সাংবাদিক দেবব্রত রায়, সাংবাদিক সাইফুল
ইসলাম, দেশসংযোগের খন্দকার কবিরুজ্জামান বাপ্পী, ছাত্র ইউনিয়নের মহানগর
কমিটির সভাপতি অর্চিষ্মান দেবনাথ সাধারণ সম্পাদক জয় বৈদ্য প্রমুখ।
সভায় বক্তারা তদন্তপূর্বক দোষী চিকিৎসক ডাঃ দিলীপ কুন্ডু ও ডাঃ সানজিদা হুদা
সুইটিসহ গরীব নেওয়াজ ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের শাস্তি দাবি করেন।

বিএমএ এর সভাপতি বলেন , অভিযোগের ব্যাপারে সত্য উদঘাটনের সর্বাত্মক
চেষ্টা করা হবে। এ ব্যাপারে তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন।খবরঃ বিজ্ঞপ্তির