বাংলাদেশ বেতারের মহাপরিচালক মারা গেছেন

নিউজ ডেস্কঃ
বাংলাদেশ বেতারের মহাপরিচালক (ডিজি) আহম্মদ কামরুজ্জামান (৫৯) মারা গেছেন( ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইনা লিলাহি রাজিউন) । শনিবার ভোরে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। বেশকিছু দিন ধরে তিনি ক্যান্সারে ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি ২ কন্যা ও স্ত্রী রেখে গেছেন।

জানা গেছে, উনার মরদেহ দেশে আনা হবে। তবে কখন আনা হবে বিষয়টি এখনও জানা যায়নি।

আহম্মদ কামরুজ্জামানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখপ্রকাশ করেছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

শনিবার সকালে তথ্যমন্ত্রীর দপ্তর থেকে পাঠানো এক শোকবার্তায় বলা হয়েছে, মন্ত্রী প্রয়াতের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন ও তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। অনলাইন।

বাংলাদেশ বেতারের প্রধান প্রকৌশলী হিসেবে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগপ্রাপ্ত আহম্মদ কামরুজ্জামান চলতি বছরের ৭ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ বেতারের মহাপরিচালক (গ্রেড-১) হিসেবে চলতি দায়িত্ব গ্রহণ করেন। এর আগে তিনি ২০২১ সালের ১১ জানুয়ারি থেকে ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাংলাদেশ বেতারের মহাপরিচালক (গ্রেড-১) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

আহম্মদ কামরুজ্জামান ১৯৮৭ সালে ৭ম বিসিএসের মাধ্যমে তথ্য ক্যাডারে মেধা তালিকায় ১ম স্থান অধিকার করে বাংলাদেশ বেতারে যোগদান করেন। ১৯৮৭ সালের ১ এপ্রিল বাংলাদেশ বেতার, খুলনায় যোগদানের মাধ্যমে তার চাকরিজীবনের সূচনা হয়।

পরবর্তীতে বিভিন্ন সময়ে গবেষণা ও গ্রহণ কেন্দ্র, উচ্চশক্তি প্রেরণ কেন্দ্র-১, মহাশক্তি প্রেরণ কেন্দ্র, ক্ষুদ্রতরঙ্গ প্রেরণ কেন্দ্র, জাতীয় বেতার ভবন, পরিকল্পনা শাখা, কারিগরি কার্যসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দপ্তরে নিজের মেধা, পরিশ্রম ও সততার স্বাক্ষর রেখে তিনি বাংলাদেশ বেতারকে সমৃদ্ধ করেছেন। তিনি ২০১৪ সালের ১৪ অক্টোবর বাংলাদেশ বেতারের প্রধান প্রকৌশলী হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করার পর তার কর্মদক্ষতা ও সুদূরপ্রসারী চিন্তাধারা প্রকৌশলগত দিক থেকে বাংলাদেশ বেতারকে করেছে আধুনিক ও যুগোপযোগী।