পায়রায় তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের উৎপাদন কার্যক্রম শুরু

নিউজ ডেস্কঃ
পায়রায় তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের উৎপাদন কার্যক্রম ফের শুরু । ২০ দিন বন্ধ থাকার পর উৎপাদন কার্যক্রম চালু হওয়ায় জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হচ্ছে ৬৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ।

রোববার (২৫ জুন) পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী খোরশেদুল আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

কয়লা সংকট কাটিয়ে আবারও উৎপাদনে দেশের সবচেয়ে বড় তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র পায়রা। রোববার বিকেল ৪টায় চালু হয় কেন্দ্রের একটি ইউনিট, যা থেকে উৎপাদিত ৬৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ যুক্ত হচ্ছে জাতীয় গ্রিডে।

পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী খোরশেদুল আলম বলেন, বিকেল ৪টা থেকে জাতীয় গ্রিডে যাচ্ছে উৎপাদিত বিদ্যুৎ। ইন্দোনেশিয়া থেকে আসা ৪১ হাজার মেট্রিক টন কয়লা দিয়ে বিদ্যুৎকেন্দ্রটির প্রথম ইউনিট চালু করা হয়েছে। তবে প্রয়োজন হলে ঈদের পর দ্বিতীয় ইউনিটও চালু হবে।

তিনি আরও বলেন, আপাতত ৪১ হাজার মেট্রিক টন কয়লা দিয়ে একটি ইউনিট ৮ দিন চলবে। তবে ৩০ জুনের মধ্যে আরও একটি জাহাজ আসছে। এরপর ধারাবাহিকভাবে আসবে আরও ১৬টি জাহাজ।

১ হাজার ৩২০ মেগাওয়াটের বিদ্যুৎকেন্দ্রটির দুটি ইউনিটের মধ্যে প্রথম ইউনিটটিতে বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রক্রিয়া শুরু হওয়ায় ঢাকা, বরিশাল ও খুলনাসহ সারা দেশের লোডশেডিং আরও কমে আসবে বলে আশা করছে কর্তৃপক্ষ। তথ্যঃ অনলাইন।

বৃহস্পতিবার (২২ জুন) দিবাগত রাত ৩টায় ইন্দোনেশিয়া থেকে এমভি অ্যাথেনা নামের একটি জাহাজ পায়রা বন্দরে এসে পৌঁছায়। ওইদিন সকাল থেকে শুরু হয় কয়লা খালাস কার্যক্রম। মার্শাল আইল্যান্ডসের পতাকাবাহী এ জাহাজটি ৪১ হাজার ২০৭ মেট্রিক টন কয়লা নিয়ে আসে। শনিবার রাতে শেষ হয় কয়লা খালাস কার্যক্রম।