ডেঙ্গুর সংক্রমণ রোধে কেসিসি কর্তৃপক্ষ সম্ভব প্রকার ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেঃ সিটি মেয়র 

খুলনা মহানগর পর্যায়ে ডেঙ্গুসহ মশাবাহিত অন্যান্য রোগ প্রতিরোধ কমিটির ২য় সভা কমিটির সভাপতি সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক এর সভাপতিত্বে নগর ভবনের জিআইজেড মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়।

খুলনা মহানগর পর্যায়ে ডেঙ্গুসহ মশাবাহিত অন্যান্য রোগ প্রতিরোধ কমিটির ২য় সভা আজ বুধবার সকাল ১০ টায় নগর ভবনের জিআইজেড মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক।

সভাপতির বক্তৃতায় সিটি মেয়র বলেন, ডেঙ্গু একটি মশাবাহিত মারাত্মক রোগ। নগরীতে পরিচ্ছন্ন পরিবেশ নিশ্চিত করার পাশাপাশি ডেঙ্গুর সংক্রমণ রোধে কেসিসি কর্তৃপ সম্ভব সকল প্রকার ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। তবে ব্যক্তিগত পর্যায়ে অনেকের নিজস্ব জায়গায় ঝোপঝাড়সহ অপরিচ্ছন্ন পরিবেশ বিদ্যমান যা দ্রুত পরিচ্ছন্ন করা দরকার বলে তিনি মন্তব্য করেন। খুলনাকে একটি স্বাস্থ্যকর ও পরিচ্ছন্ন নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে তিনি নগরবাসীর সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

সভায় আগামী জানুয়ারি মাস থেকে ডেঙ্গুর সংক্রমণ রোধে নগরীর বিভিন্ন স্থানে সচেতনতামূলক সভার আয়োজন, মশক নিধনকল্পে বিশেষ অভিযান পরিচালনা, ড্রেনের সাথে সংযুক্ত সেপটিক ট্যাংক বন্ধে কঠোর পদপে গ্রহণ, ঝোপঝাড় ও ময়লা আবর্জনা অপসারণে ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

কমিটির সদস্য কেসিসি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (যুগ্মসচিব) লস্কার তাজুল ইসলাম, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা সানজিদা বেগম, খুলনা মেডিকেল কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ডা. এস এম মাসুম ইকবাল, সহকারী অধ্যাপক ডা. প্রীতিশ তরফদার, বিভাগীয় সহকারী স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. অপর্ণা বিশ্বাস, কমিটির সদস্য সচিব কেসিসি’র প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. স্বপন কুমার হালদার, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শরীফ শাম্মীউল ইসলাম, কেসিসি’র প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা প্রকৌশলী মো. আনিসুর রহমান, ভেটেরিনারি সার্জন ড. পেরু গোপাল বিশ্বাস, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. এস.এম কামাল হোসেন, স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা রূপান্তর-এর নির্বাহী পরিচালক স্বপন কুমার গুহ, প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্পের টাউন ম্যানেজার মোহাম্মদ মোস্তফা, কেসিসি’র সহকারী কঞ্জারভেন্সী অফিসার নূরুন্নাহার এ্যানী প্রমুখ সভায় উপস্থিত ছিলেন। খবরঃ বিজ্ঞপ্তির